দুর্ঘটনায় মৃত ১ , আহত ১

 দুর্ঘটনায় মৃত ১ , আহত ১ চালসা , ১২ জুলাই : রবিবার দুটি পৃথক পথ দুর্ঘটনায় এক ব্যক্তির মৃত্যু হল , আহত হলেন এক মহিলা । এদিন সকালে জাতীয় সড়কে দুর্ঘটনায় সিংহা ওরাওঁ ( ৫০ ) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয় । মৃতের বাড়ি বিধাননগর গ্রাম পঞ্চায়েতের মাথাচুলকা এলাকায় । পাশাপাশি , এদিন দুপুরে অ্যাম্বুল্যান্স ও ছােট গাড়ির সংঘর্ষে এক মহিলা আহত হলেন । রবিবার সকালে সিংহা ওরাওঁ বাইকে করে জাতীয় সড়ক ধরে চালসার দিকে যাচ্ছিলেন । মঙ্গলবাড়ি বাজার সংলগ্ন খরিয়ারবন্দর জঙ্গলের টিয়াবন এলাকায় ওই বাক্তি দুর্ঘটনার কবলে পড়েন । রাস্তায় পড়ে থাকা একটি গাছের সঙ্গে ধাক্কা লেগে বাইক ছিটকে পড়ে যান তিনি । স্থানীয়রা ব্যক্তিকে গুরুতর আহত অবস্থায় চালসার মঙ্গলবাড়ি গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানেই তার মৃত্যু হয় ।

 মেটেলি থানার পুলিশ বাইকটি উদ্ধার করে নিয়ে যায় । দেহ ময়নাতদন্তের সড়ক জন্য জলপাইগুড়ি সদর হাসপাতালে গােলাইয়ে পাঠানাে হয়েছে । অন্যদিকে , এদিন সকালে বীরপাড়া থেকে একটি হয় অ্যাম্বুল্যান্স রােগী নিয়ে জাতীয় সড়ক ধরে শিলিগুড়ি যাচ্ছিল । অন্যদিকে , মেটেলি থেকে একটি ছােট গাড়ি রাজ্য
সড়ক ধরে চালসায় আসছিল । চলিসা গােলাইয়ে জাতীয় সড়কের ট্রাফিক পয়েন্টের সামনে দুটি গাড়ির সংঘর্ষ ছােট গাড়িটি বেশি ক্ষতিগ্রস্ত গাড়িতে থাকা এক মহিলা আহত হন । তাকে চালসার মঙ্গলবাড়ি গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া
[23:27, 13/07/2020] Asad: অ্যাম্বুল্যান্সে থাকা রােগীদের কিছু হওয়ায় তাদের অন্য গাড়িতে শিলিগুড়ি পাঠানাে হয় । ট্রাফিক পয়েন্টের সামনেই ওই দুর্ঘটনা ঘটায় ট্রাফিক পুলিশের দায়িত্ব নিয়ে ওঠা শুরু করেছে মেটেলি থানার পুলিশ দুটি গাড়িকেই আটক করেছে ।

চঁাচল সুপারস্পেশালিটিতে করােনার হানা সংক্রামিত ছয় স্বাস্থ্যকর্মী

চঁাচল সুপারস্পেশালিটিতে করােনার হানা সংক্রামিত ছয় স্বাস্থ্যকর্মী 

চাচল , ১২ জুলাই : এবার করােনার থাবা পড়ল চাঁচল সুপারস্পেশালিটি হাসপাতালে । ওই হাসপাতালের ছয়জন স্বাস্থ্যকর্মীর করােনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে । গত ২৪ ঘণ্টায় উত্তর মালদায় মােট ২২ জন করােনা সংক্রামিত হয়েছেন । তার মধ্যে রতুয়া ১ ব্লকের ছয় জন , রতুয়া -২ এর ১১ এবং চাচল ১ ব্লকের পাঁচ জন রয়েছেন । তবে সুপারস্পেশালিটি হাসপাতালের ছয় স্বাস্থ্যকর্মীর করােনা আক্রান্ত হওয়ার ঘটনায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে চাচলে । শনিবার রাতে তাদের লালা পরীক্ষার রিপাের্ট পজিটিভ আসার পর সাধারণ মানুষের লালা পাশাপাশি স্বাস্থ্য মহলেও উদ্বেগ ছড়িয়েছে । হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে , গত ৬ জুলাই ওই ছয় স্বাস্থ্যকর্মীর লালার নমুনা নেওয়া হয়েছিল । এর মধ্যে একজন পুরুষ ও পাঁচজন মহিলা স্বাস্থ্যকর্মী রয়েছেন । নমুনা নেওয়ার পরেও হাসপাতালের বিভিন্ন বিভাগে কর্তব্যরত ছিলেন তারা । এক নার্স আবার সামসীতে নিজের বাড়িতে ছিলেন । ওই নার্সের সঙ্গে সংক্রামিত হয়েছেন তার স্বামীও । 


তিনি সামসির একজন ব্যবসায়ী । হাসপাতাল সূত্রে আরও জানা গিয়েছে এই স্বাস্থ্যকর্মীরা সবাই নার্স । তাদের কারাের কোনও উপসর্গ ছিল না । এখনও নেই । ফলে তাঁরা যে সংক্রামিত , তা দেখে বােঝার উপায় ছিল না । সংক্রামিতদের নিজেদের আবাসনে । রেখে পর্যবেক্ষণ করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য দপ্তরের কর্তারা । এই কদিনে সংক্রামিত নার্সদের সংস্পর্শে কারা এসেছেন তার তালিকাও তৈরি করা হচ্ছে । চাচল ১ ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক আখতার হােসেন বলেন , ওই স্বাস্থ্যকর্মীদের করােনা পজিটিভ মিললেও তাদের শরীরে কোনও লক্ষণ না থাকায় হাসপাতালের নিজস্ব কোয়ার্টারে তাদের হােম কোয়ারান্টিনে রাখা হয়েছে । চিন্তার কোনও কারণ নেই বলে তিনি জানিয়েছেন । নতুন করে যাতে সেখানে আর কেউ সংক্রামিত না হন , তার জন্য পুরাে হাসপাতাল স্যানিটাইজ করার কাজ শুরু হয়েছে । চাচল সুপারস্পেশালিটি হাসপাতালের সুপার ওয়াসিম রানা জানান , চিকিৎসা পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত প্রত্যেকেরই লালার নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হচ্ছে । যাতে আর কেউ সংক্রামিত রয়েছেন কিনা তা বােঝা যায় । এই পরীক্ষা । আগামীতেও চলবে । গােটা ঘটনা নিয়ে স্বাস্থ্য মহলেরই একাংশ প্রশ্ন তুলেছে , লালা পরীক্ষার রিপাের্ট না আসা পর্যন্ত ওই ছয়জনকে কেন কাজ করানাে হল ? এক্ষেত্রে সংক্রমণ ছড়ানাের আশঙ্কা অনেকটাই বেড়ে যাবে বলে মহলের ধারণা । এই পরিস্থিতিতে চাচলে ফের কড়া আংশিক লকডাউনের দাবিতে সরব হয়েছে । ব্যবসায়ী ও নাগরিক সমাজ । রবিবার চাঁচলের আওয়াজ নামে একটি না কমিটির তরফে কড়া লকডাউন চালু করার জন্য চাচল ১ - এর বিডিওর কাছে স্মারকলিপি দেওয়া হয় । 

PUBG Ban in Pakistan and India-পাবাজি বন্ধ করা হল পাকিস্তান এবং ইন্ডিয়াতে।

পাবাজি বন্ধ করা হল পাকিস্তান এবং ইন্ডিয়াতে। 

বর্তমানের  সব চাইতে বোরো খবর পাবাজি বন্ধ করা হল পাকিস্তান এবং ইন্ডিয়ান আর্মি তে। অনেক দিন থেকে প্রত্যেক বাবা মা এর দাবি ছিল যেন পাবাজি বন্ধ করা হোক। কারণ পাবজি এমন একটি অনলাইন গেম ছিল যা নিজে বর্তমান ভারত এর সব যুবক মেতে ছিল। একদিকে তো এই পাবাজি গেম এর জন্য পড়াশুনা ,সময় ,টাকা নষ্ট হচ্ছিলো তার থেকে বোরো সমস্যা এই পাবাজি গেম আমাদের যুব সমাজকে নষ্ট করে দিচ্ছিলো এবং অনেকে  এই  গেম এর নেশায় অনেক রোগ এ আক্রান্ত হচ্ছিলো। তাই এগুলো কথা মাথায় রেখে পাকিস্তানে পাবাজি সম্পূর্ণ ভাবে বন্ধ করা হয়। 

ভারতে পাবাজি গেম বন্ধ :

বর্তমানে ভারত পৃথিবীর দৃতীয় জনসংখ্যা পূর্ণ দেশএবং সব দেশ এর মতোই ভারত এ ও পাবাজি গেম অনেক জনপ্রিয একটি গেম। উপরুক্ত সব কর্ম এর জন্য ভারত এর ও সব বাবা মা চায় এই গেমটি বন্ধ করা হোক। কিন্তু কিছু কারণ এ এখনো এই পাবাজি গেমটি ভারত এ বন্ধ করা সম্ভব হয় নি। কিন্তু এখন ভারত এর পক্ষ থেকে একটি বিশাল বোরো খবর এসেছে যে ভারতীয় সেনাবাহিনীতে পাবাজি যেন বন্ধ করা হয়েছে। ভারত এর যত সেনা আছে তাদের ফোন থেকে পাবাজি গেম ডিলিট করা হয়েছে।বর্তমানে ভারত এবং চীন এর মধ্যে চলা কালীন ঝামেলার জন্য এই পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। যেহেতু পাবাজি গেম পুরোপুরি চিনে এর না তাই শুধু আর্মি তে বন্ধ করা হলো কিন্তু বিশেষ সূত্রে জানা গেছে যে ভারত এ ও পুরো পুরি বন্ধ হতে চলেছে পাবাজি গেম। 


                       তো আপনাদের কি মনে হয় ভারত এ পাবাজি গেম পুরো পুরি ভাবে  বন্ধ হয় প্রয়োজন কি না তা অবশ্যই কমেন্ট বাক্স এ জনাবেন এবং এটি বেশি বেশি করে জনস্বার্থে শেয়ার করবেন।

দুর্ঘটনায় মৃত ১ , আহত ১

 দুর্ঘটনায় মৃত ১ , আহত ১ চালসা , ১২ জুলাই : রবিবার দুটি পৃথক পথ দুর্ঘটনায় এক ব্যক্তির মৃত্যু হল , আহত হলেন এক মহিলা । এদিন সকালে জাতীয় সড...